তাস খেলা শেষে ফেরার পথে জুয়াড়ির মৃত্যু

তাস খেলা শেষে ফেরার পথে জুয়াড়ির মৃত্যু

অপরাধ ও বিচার দিনাজপুর প্রতিদিন দিনাজপুরের খবর

দিনাজপুরের বিরামপুরে শাখা যমুনা নদীরপাড়ে তাস খেলা শেষে ফেরার পথে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মোতালেব হোসেন (৬০) নামের এক বৃদ্ধ মারা গেছেন।

এ ঘটনায় ওই এলাকা থেকে তিন জুয়াড়িকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌর শহরের মির্জাপুর এলাকার শাখা যমুনা নদীরপাড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তি রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার খোদ্রগোপালপুর এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে।

এলাকাবাসী যে তিন জুয়াড়িকে আটক করেছেন তারা হলো- পীরগঞ্জ উপজেলার টুকরি দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত রমিজ উদ্দিনের ছেলে বাবু মিয়া (৪০), একই উপজেলার বলদি বাতান গ্রামের মহেন্দ্র চন্দ্রের ছেলে রমণী কান্ত (৩৬), খালাশপীর এলাকার মতিয়ার রহমানের ছেলে মুশফিকুর রহমান (৩৫)।

স্থানীয় জামাদারপাড়া গ্রামের সাদ্দাম হোসেন যুগান্তরকে বলেন, বৃহস্পতিবার বিকালে শাখা যমুনা নদীর পাড়ে নির্জন স্থানে ১০-১২ জন লোক তাস দিয়ে জুয়া খেলছিল। খেলা শেষে ফেরার পথে নদীরপাড়ে এক ব্যক্তিকে নৌকায় করে নদী পার করার চেষ্টা করেন। এ সময় নদীর অন্যপাশে লোকজন এসে তিনজন জুয়াড়িকে আটক করে পুলিশে খরব দেন। ততক্ষণে নদীর অন্যপাড়ে পড়ে থাকা বৃদ্ধ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার এবং তিন জুয়াড়িকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

জানতে চাইলে বিরামপুর থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত যুগান্তরকে বলেন, শাখা যমুনা নদীর পাড়ে জুয়া খেলা শেষে ফেরার সময় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মোতালেব হোসেন নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ সময় স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে তিন জুয়াড়িকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সূত্রঃ যুগান্তর 

Dinajpur Today

তাস খেলা শেষে ফেরার পথে জুয়াড়ির মৃত্যু

Leave a Reply

Your email address will not be published.