পার্বতীপুরে কৃষকের বীজতলা রাসায়নিক ছিটিয়ে নষ্ট

পার্বতীপুরে কৃষকের বীজতলা রাসায়নিক ছিটিয়ে নষ্ট

অপরাধ ও বিচার কৃষি পণ্য ও ব্যবসা দিনাজপুর প্রতিদিন দিনাজপুরের খবর

পার্বতীপুরে কৃষকের বীজতলা রাসায়নিক ছিটিয়ে নষ্ট

পার্বতীপুরে প্রত্যন্ত পল্লীতে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে চলতি আমন ধানের বীজতলায় বিষাক্ত গ্যাস ছিটিয়ে সমস্ত গজিয়ে উঠা চারা নিধন করেছে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে কৃষকের মাথায় বাজ পরেছে।

সরেজমিনে তথ্য নেওয়ার সময় পরিবারকে কান্না-কাটি করতে দেখা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শালন্দার গ্রামে। জানা যায়, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সৈয়দুর রহমান আশায় বুক বেঁধে ৬০ শতাংশ জমিতে নানা জাতের বীজ তলা নির্মান করে এবং প্রায় ৩০ বিঘা জমিতে ঐ আমান চারা গুলো রোপনের প্রস্তুতি নেয়।

এরই মধ্যে দুর্বৃত্তরা সোমবার গভীর রাতে বীজতলাটিতে বিষাক্ত রাসায়নিক ছিটিয়ে পুড়ে দেয়। ৬০ শতাংশ বীজতলা জমিতে জিরা, গুটি, স্বর্ণা-৫ এই তিন জাতের বীজ করা ছিলো। ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষক সৈয়দুর রহমান জানান, পূর্বের জমিজমার শত্রুতার জের ধরেই আমার প্রায় ১২ লক্ষ টাকার অপূরণীয় ক্ষতিসাধন করেছে প্রতিপক্ষরা।

এ সংবাদ পাঠানো পর্যন্ত এ ব্যাপারে আজ বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কৃষি অফিসার ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অভিযোগ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার সাথে কথা হলে জানান, প্রাথমিক ভাবে চেষ্টা করা হচ্ছে চারা গুলো রক্ষার, শেষটা কি হয় বলা যাচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা হলে জানান, অভিযুক্তদের শাস্তিসহ যথাযথ ব্যবস্থ নেয়া হবে।

পার্বতীপুরে কৃষকের বীজতলা রাসায়নিক ছিটিয়ে নষ্ট

Dinajpur Today

পার্বতীপুরে প্রত্যন্ত পল্লীতে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে চলতি আমন ধানের বীজতলায় বিষাক্ত গ্যাস ছিটিয়ে সমস্ত গজিয়ে উঠা চারা নিধন করেছে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে কৃষকের মাথায় বাজ পরেছে।

সরেজমিনে তথ্য নেওয়ার সময় পরিবারকে কান্না-কাটি করতে দেখা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শালন্দার গ্রামে। জানা যায়, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সৈয়দুর রহমান আশায় বুক বেঁধে ৬০ শতাংশ জমিতে নানা জাতের বীজ তলা নির্মান করে এবং প্রায় ৩০ বিঘা জমিতে ঐ আমান চারা গুলো রোপনের প্রস্তুতি নেয়।

এরই মধ্যে দুর্বৃত্তরা সোমবার গভীর রাতে বীজতলাটিতে বিষাক্ত রাসায়নিক ছিটিয়ে পুড়ে দেয়। ৬০ শতাংশ বীজতলা জমিতে জিরা, গুটি, স্বর্ণা-৫ এই তিন জাতের বীজ করা ছিলো। ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষক সৈয়দুর রহমান জানান, পূর্বের জমিজমার শত্রুতার জের ধরেই আমার প্রায় ১২ লক্ষ টাকার অপূরণীয় ক্ষতিসাধন করেছে প্রতিপক্ষরা।

এ সংবাদ পাঠানো পর্যন্ত এ ব্যাপারে আজ বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কৃষি অফিসার ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অভিযোগ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার সাথে কথা হলে জানান, প্রাথমিক ভাবে চেষ্টা করা হচ্ছে চারা গুলো রক্ষার, শেষটা কি হয় বলা যাচ্ছে না। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা হলে জানান, অভিযুক্তদের শাস্তিসহ যথাযথ ব্যবস্থ নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.