চেলসি আর ফ্রান্সকে ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন কান্তে

চেলসি আর ফ্রান্সকে ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন কান্তে

খেলাধুলা ও বিনোদন দিনাজপুর প্রতিদিন

চেলসি আর ফ্রান্সকে ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন কান্তে

ম্যাচের ৩২ মিনিট চলছে তখন। হঠাৎ সাইডলাইন থেকে সহকারী রেফারি বিকল্প খেলোয়াড় নামার ঘোষণা হিসেবে নাম্বারের বোর্ডটা মাথার ওপরে তুললেন। সে বোর্ডটা দেখেই আত্মা শুকিয়ে গেল চেলসি আর ফ্রান্স জাতীয় দলের ভক্তদের।

বোর্ডে লাল অক্ষরে লেখা ‘৭’, সবুজ অক্ষরে লেখা ‘১৭’। অর্থাৎ মাঠে থাকা সাত নম্বর জার্সিধারী ফরাসি মিডফিল্ডার এনগোলো কান্তে উঠে যাচ্ছেন, তাঁর জায়গায় নামানো হচ্ছে ১৭ নম্বর জার্সি পরা ক্রোয়েশিয়ান মিডফিল্ডার মাতেও কোভাচিচকে। না, কোভাচিচ যে খেলোয়াড় হিসেবে খুব খারাপ, তা নন। তাই বলে কান্তের মানেরও নন।

 

লেস্টারের হয়ে লিগ জিতেছেন, পরে একই কীর্তি গড়েছেন চেলসির হয়েও। ফ্রান্সের হয়ে বিশ্বকাপ জিতেছেন। গত দশ বছরের সেরা রক্ষণাত্মক মিডফিল্ডারের ছোট্ট তালিকাতে কাসেমিরো কিংবা বুসকেতসের সঙ্গে তাঁর নামটা থাকবেই। কান্তে যে কোন ধাতে গড়া, সেটা বুঝিয়েছেন এবার আতলেতিকো মাদ্রিদ, রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচগুলোতে। কান্তের পারফরম্যান্স নিয়ে আবারও সরব হয়েছে বিভিন্ন মিডিয়া। ফ্রান্সের কোচ দিদিয়ের দেশমের তো বটেই, চেলসির নতুন কোচ টমাস টুখেলের কৌশলের অন্যতম অস্ত্র তিনি। সেই কান্তেই যদি ম্যাচের ৩২ মিনিটে উঠে যান, তাহলে তো চিন্তিত হতেই হয়।

সামনেই ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল। এরপর আছে ইউরোও, যে ইউরো ২০১৬ সালে হাতছোঁয়া দূরত্বে এসে যাওয়ার পরও ফ্রান্সের নাগালে আসেনি। এমন অবস্থায় কান্তের চোটে পড়া মানে ম্যাচের আগেই ব্যাকফুটে চলে যাওয়া। চেলসি বা ফ্রান্সের ভক্তরা ব্যাপারটা সহজে মেনে নেবেন কেন?

 

যা–ই হোক, শেষমেশ চেলসির কোচ টুখেলের কথাই স্বস্তি এসেছে চেলসি শিবিরে। জানা গেছে, চোটে পড়েননি কান্তে। তবে চোটে যেন না পড়েন, সে সতর্কতার অংশ হিসেবেই কান্তেকে মাঠ থেকে আগে তুলে নেওয়া হয়েছে গত রাতে, ‘এনগোলো চোটে পড়েনি। ও আমাকে বলেছে, আর আমি ফরাসি ভাষাটা একটু-আধটু বুঝি, যে ও চোটে পড়ার আগেই মাঠ থেকে বেরিয়ে এসেছে।’

কান্তের সম্ভাব্য চোটটা হামস্ট্রিংসংক্রান্ত ছিল বলে জানিয়েছেন টুখেল, ‘ওর হামস্ট্রিংয়ে একটু সমস্যা হচ্ছিল। তাই ওর চিন্তা হচ্ছিল ও খেলা চালিয়ে গেলে ও চোটে পড়বে। তাই ওকে উঠিয়ে নেওয়া হয়।’

কান্তে উঠে গেলেও গত রাতে ম্যাচ জিততে সমস্যা হয়নি চেলসির। দুদিন আগে যে লেস্টার সিটির বিপক্ষে এফএ কাপ ফাইনাল হেরেছিল তারা, সে লেস্টারের বিপক্ষেই গত রাতে ২-১ গোলে জিতেছে অল ব্লুজরা।

চেলসি আর ফ্রান্সকে ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন কান্তে

Leave a Reply

Your email address will not be published.