অর্ধেকের বেশি নমুনা গ্রামের বাসিন্দাদের

অর্ধেকের বেশি নমুনা গ্রামের বাসিন্দাদের

দিনাজপুর প্রতিদিন দিনাজপুরের খবর স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

অর্ধেকের বেশি নমুনা গ্রামের বাসিন্দাদের

জেলায় বর্তমানে করোনা রোগী আছেন ২ হাজার ১১১ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি ১৪৮ জন। অন্যরা হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তবে আক্রান্ত ব্যক্তিদের কেউ কেউ হোম আইসোলেশনে থাকছেন না। অনেকে আক্রান্ত অবস্থায় গ্রামে চলে যাচ্ছেন।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে সমন্বয় করে দিনাজপুরে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙানোসহ রোগীদের খোঁজখবর নেওয়ার দায়িত্ব পালন করছে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জাগ্রত দিনাজপুর। সংগঠনের প্রধান আফসানা আফরোজ বলেন, গত চার দিনে শতাধিক রোগীর খোঁজ নিয়েছেন তাঁরা। বাড়িতে পেয়েছেন ১৮ জনকে। অন্যরা আক্রান্ত অবস্থাতেই গ্রামের বাড়িতে চলে গেছেন, কাউকে পাওয়া যায় রাস্তার মোড়ের চায়ের দোকানে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি না মানা এবং অসচেতনতার কারণে গ্রামে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। দিনাজপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক পারভেজ সোহেলের মতে, লকডাউন, কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে অপ্রয়োজনে অথবা জরুরি প্রয়োজনে গ্রাম থেকে মানুষ শহরে আসছেন। বিভিন্নজনের সংস্পর্শে গিয়ে তাঁরা হয়তো সংক্রমিত হয়ে আবার গ্রামে ফিরে যাচ্ছেন। প্রাথমিকভাবে তাঁরা হয়তো তা বুঝতে পারছেন না। জ্বর হলে ওষুধ খাচ্ছেন। কিন্তু যখন শ্বাসকষ্ট শুরু হচ্ছে, তখন হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। মাঝের সময়টাতে তাঁর সংস্পর্শে গিয়ে আরও অনেকের সংক্রমিত হওয়ার ঘটনা ঘটতে পারে।

গ্রামের বাসিন্দারা সাধারণত কোনো অসুখে স্থানীয় ফার্মেসি থেকেই ওষুধ কেনেন। করোনার উপসর্গ, যেমন জ্বর, সর্দি, কাশির ওষুধ কেনা ব্যক্তিদের সংখ্যার ধারণা পাওয়া যায় সদর উপজেলার রানীগঞ্জ এলাকার আলাউদ্দীন ফার্মেসিতে খোঁজ নিয়ে। এর স্বত্বাধিকারী জিয়ারুল ইসলাম গতকাল জানান, তাঁর ফার্মেসি থেকে দৈনিক ৩০-৩৫ জন রোগী ওষুধ কেনেন। কিন্তু বর্তমানে যাঁরা আসছেন, তাঁদের প্রায় সবাই জ্বর, সর্দি, কাশির রোগী। ফার্মেসিতে এসে তাঁরা প্যারাসিটামল–জাতীয় ওষুধ কিনছেন।

বিরল উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আবদুল মোকাদ্দেস বলেন, প্রতিদিন হাসপাতালের বহির্বিভাগে ১৫০-২০০ জন রোগী দেখা হয়। আগে এর মধ্যে ১০-১৫ জন রোগী জ্বর, সর্দির রোগী থাকতেন। বর্তমানে এসব রোগী অর্ধেকের বেশি।

অর্ধেকের বেশি নমুনা গ্রামের বাসিন্দাদের

Dinajpur Today সূত্র: Prothom Alo

Leave a Reply

Your email address will not be published.