দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে পেঁয়াজে দাম

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে পেঁয়াজে দাম

দিনাজপুর প্রতিদিন দিনাজপুরের খবর

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে পেঁয়াজে দাম

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের পাইকারী বাজারে দুই দিনের ব্যবধানে বেড়েছে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম। কেজি প্রতি ভারতীয় পেঁয়াজের দাম প্রকারভেদে বেড়েছে ৩ থেকে ৬ টাকা। গত দুই দিন আগে ভারতীয় যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে প্রকারভেদে ২৫ থেকে ২৬ টাকা। আজ সেই পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২৮ থেকে ৩২ টাকায়। এদিকে দেশীয় পেঁয়াজ প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৩৪ থেকে ৩৬ টাকায়।

দাম বাড়তি কারন হিসেবে ব্যবসায়ীরা জানান, ইমপোর্ট পারমিট (আইপি) বন্ধ থাকার কারনে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আর কোন পেঁয়াজ ভারত থেকে আসছে না। যার কারনে আমদানি কারকরা চাহিদা মোতাবেক পেঁয়াজ বাজারে সরবরাহ করতে পারছে না। গত সপ্তাহে কিছু পেঁয়াজ ট্রেনের মাধ্যমে আমদানি হয়েছে। সেই সব পেঁয়াজ এখন ব্যবসায়ীরা বাজারে বিক্রি করছেন। যার কারনে পাইকারি বাজারে বাড়তে শুরু করেছে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম।

পেঁয়াজ কিনতে আসা মাজহারুল ইসলাম জানান, গত দুই দিন আগেই ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ২৫ টাকা কেজি ছিলো। কিন্তু আজ সেই একই পেঁয়াজ কিনলাম ৩০ টাকা কেজিতে। হঠাৎ এই নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম বৃদ্ধিতে আমরা বিপাকে পরে যাই। বাজার মনিটরিং প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন।

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে পেঁয়াজে দাম

Dinajpur TodayFacebookPageandGroup

বাজারে পেঁয়াজের দাম

ঈদের পরে ভারত থেকে সরবরাহ কম থাকার কারণে দেশের বাজারে কেজিপ্রতি পাঁচ টাকা করে বেড়ে যায় সব ধরনের পেঁয়াজের দাম। এখন দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় সেই বাড়তি দাম কমে এসেছে। খুচরায় আবারও ৪০ টাকা কেজিতে দেশির পাশাপাশি বিদেশি পেঁয়াজও মিলছে।

ঈদের পরপরই ভারতের পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি ৫ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গিয়েছিল। এর প্রভাব পড়ে দেশি পেঁয়াজের বাজারেও। এতে খুচরা বাজারে ভারতীয় এবং দেশি উভয় ধরনের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে একই দামে। বাজারে তখন উভয় ধরনের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়। যা ঈদের আগেও ৪০ থেকে ৪৫ টাকার মধ্যে ছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.