দিনাজপুর সদরে কঠোর লকডাউনেও বাড়ী বাইরে মানুষ

দিনাজপুর সদরে কঠোর লকডাউনেও বাড়ী বাইরে মানুষ

দিনাজপুর প্রতিদিন দিনাজপুরের খবর

দিনাজপুর সদরে কঠোর লকডাউনেও বাড়ী বাইরে মানুষ

 করোনা সংক্রমন ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় প্রশাসন কর্তৃক ঘোষিত কঠোর লকডাউনে সাধারণ মানুষকে বাড়ী রাখা সম্ভব হচ্ছে না। প্রশাসন ও পুলিশের একাধিক টিম মাঠে কাজ করলেও কোন লাভ হচ্ছে না। অপরদিকে ২৪ ঘন্টায় জেলায় ৭৬ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে শুধুমাত্র দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৬০ জন রয়েছে। যা দিনাজপুর সদর উপজেলায় আক্রান্তের হার দাড়িয়ে ৫৩ শতাংশ।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় ১৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৭৬ জনের নমুনা পজিটিভ পাওয়া যায়। যা জেলায় করোনা আক্রান্তের হার দাড়িয়েছে ৩৮ দশমিক ৯৭ শতাংশ। নতুন ৭৬ জন আক্রান্তের মধ্যে দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৬০ জন রয়েছে। যা দিনাজপুর সদর উপজেলায় আক্রান্তের হার দাড়িয়েছে ৫৩ শতাংশ।

এদিকে সংক্রমন ও মৃত্যু বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রশাসন কর্তৃক ঘোষিত কঠোর লকডাউনের বুধবার দ্বিতীয় দিন। কঠোর লকডাউনের মাঝেও সাধারণ মানুষকে বাড়ীতে রাখা সম্ভব হচ্ছে না। জেলা সদর উপজেলার প্রবেশের সকল সড়কে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, পুলিশ ও আনসারের নেতৃত্ব চেকপোষ্ট বসানো হয়েছে। তবে জেলা শহরের চিত্র ছিল ভিন্ন। শহরের ভিতরে ইজিবাই, ভ্যান, রিক্সা, মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ রাখার কথা থাকলেও তা কেউ মানছে না। কঠোর লকডাউনের মধ্যে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোতে ছিল যানজট। দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশনা থাকলেও তা কেউ মানছে না। অনেকে আবার দোকান খোলা রেখে সাটার বন্ধ করে রাখছে।

তবে জেলা সদরের প্রবেশের পথগুলোতে সাধারণ মানুষ প্রচন্ড ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। সদরের প্রবেশের মুখগুলোতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও জেলা সদরের বাইরে থেকে জেলার বিভিন্ন রুটে চলাচল করতে গণপরিবহন।

এদিকে প্রশাসনের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানান, কঠোর লকডাউনের কারণে বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জেলায় একাধিক অভিযান টিম অভিযান চালিয়ে প্রায় লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করেছে।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডাঃ আব্দুল কুদ্দুস জানান, দিনাজপুর সদর উপজেলায় সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে গেছে। তাই মঙ্গলবার ভোর থেকে ৭ দিনের কঠোর লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। কঠোর লকডাউন চলাকালে কোন ধরনের যানবাহন চলাচল করবে না, বন্ধ থাকবে সব ধরনের দোকানপাট। শুধুমাত্র কাচা বাজার ও মুদিখানা সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত এবং ওষুধের দোকান খোলা থাকবে। শহরে শুধুমাত্র এ্যাম্বুলেন্স ও জরুরী সেবার যানবাহন চলাচল করবে।

দিনাজপুর সদরে কঠোর লকডাউনেও বাড়ী বাইরে মানুষ

সূত্রঃ Dinajpur News, ছবিঃ প্রথম আলো 

Dinajpur Today Facebook Page and Group

Leave a Reply

Your email address will not be published.